রূপকাহিনীর রাজ্যে - মোবারক হোসেন খান

রূপকাহিনীর রাজ্যে - মোবারক হোসেন খান

রূপকাহিনীর রাজ্যে
মোবারক হোসেন খান

প্রকাশক: গ্রন্থকানন, ঢাকা
প্রকাশকাল: ২০১৪
পৃ- ৭২, মূল্য- ১২৫
প্রচ্ছদ: সমর মজুমদার

ভূত-প্রেত, রাক্ষস-ডাইনী, জ্বীন-পরী, রাজপুত্র-রাজকন্যার গল্প শুনতে সবাই ভালোবাসে। সারা পৃথিবীর শিশুরা শৈশবে তাদের বাড়ির বয়স্ক ব্যক্তির নিকট নানারকম মজার মজার গা শিউরানো দৈত্য-দানবের গল্প শুনতে থাকে। সন্ধ্যাবেলা হ্যারিকেন জ্বালিয়ে তার চারপাশে গোল হয়ে বসে হরেক রকম অলৌকিক বা ভৌতিক গল্প শোনার অভিজ্ঞতা অনেকেরই আছে। এরকম কিছু আকর্ষণীয় রোমাঞ্চকর গল্প দিয়ে সাজানো মোবারক হোসেন খান- এর "রূপকাহিনীর রাজ্যে" গল্পের বইটি।

বইয়ের ভূমিকায় লেখক যা বলেছেন তার একাংশ দেখে নেয়া যাক।

“… দারুণ দারুণ কিছু মজার রূপকথার গল্প নিয়েই রচিত হয়েছে 'রূপকাহিনীর রাজ্যে'। রোমাঞ্চকর আর গা শিউরে উঠা গল্পগুলো পড়তে ভীষণ মজা পাবে শিশু-কিশোররা। কারণ তাদের মনের প্রত্যাশাই প্রতিফলিত হয়েছে গল্পগুলোর পরতে পরতে।"

মোট এগারটি গল্প নানা চরিত্র ও বিষয় অদ্ভূত সব ঘটনা ঘটিয়ে পাঠকের কৌতুহলকে জাগিয়ে রাখে। ফলে পাঠক কখনও ঘোড়ায় চড়ে টগবগ করে কাঁচ পাহাড়ে উঠে যায় সেখানে বাস করা রাজকন্যার হাত থেকে সোনার আপেল নিতে, কখনও কখনও পাঠক ডাইনীর হাতে বন্দী মেয়েটির জন্য ক্ষুব্ধ হয়ে ওঠে। কখনও বা হাতি ও কচ্ছপকে পাশে নিয়ে ময়না পাখির কথা শুনতে উৎসাহী হয়ে ওঠে, কখনও বা বানরছানার সাথে অর্থহীন সব দুষ্টুমিতে আনন্দিত হয়ে ওঠে। সূচীপত্রে উল্লেখিত গল্পের শিরোনাম পড়লেই গল্পগুলোর স্বাদ উপভোগ করা যাবে।


  • ১। ঝিনুক রাজকুমার
  • ২। বানর রাজকুমার
  • ৩। রাজকুমার গোলাপী মুক্তো
  • ৪। কাঁচ-পাহাড়ের রাজকন্যা
  • ৫। ডালিম গাছের রাজা
  • ৬। ডাইনির মৃত্যু
  • ৭। রাজকুমারের প্রত্যাবর্তন
  • ৮। ডাইনি বুড়ির উচিত শাস্তি
  • ৯। দরবেশের বর
  • ১০। বুদ্ধির যুদ্ধ
  • ১১। আইনের বিচার

শিশু কিশোরদের মনের উপযোগী করে লেখা গল্পগুলো লেখকের নিজের রচিত, নাকি বাংলাদেশের গ্রামান্তর থেকে সংগৃহীত, নাকি কোন বিদেশী কাহিনী অবলম্বনে তা কোথাও উল্লেখ নেই। তবে কয়েকটি গল্পে 'ইরাক' ‘পারস্য' ইত্যাদি শব্দের ব্যবহার পাঠকের মনকে অনুসন্ধিৎসু করে তুলবে। গল্পগুলো যদি লেখকের নিজের স্বকপোলকল্পিত হয় তাহলে তাঁর গল্প রচনার সামর্থকে প্রশংসা করতেই হয়। গল্পগুলো সত্যিকার অর্থেই শিশু-কিশোরদের মনের উপযোগী করে রচিত হয়েছে। রাজপুত্র, রাজকন্যা, হরিণ, বাঘ, জাদুকর, ডাইনী, ভূত, পেত্নী, রাক্ষস, দানব, খরগোশ, কচ্ছপ, হাতি, বানর সবাইকে লেখক পাঠকের মনের উপযোগী করে রঙিন করে উপস্থাপন করতে পেরেছেন। ফলে তার গল্প পড়া যতই এগোয় ততোই উৎসাহী কৌতুহলী হয়ে ওঠে পরিণতি জানবার জন্য। এক অদম্য কৌতুহল পাঠকের মনোযোগকে গল্পের প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত একাগ্র করে ধরে রাখে। নানারকম সমস্যা শেষে গল্পের ভাল চরিত্রগুলো যখন জিতে যায়, সফলতা পায়, পুরস্কৃত হয়, আনন্দিত হয় তখন আমরাও স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলি। গল্পপাঠকালীন সময়ে এক রোমাঞ্চকর রহস্যময় জগত থেকে বাস্তব পৃথিবীতে ফিরে এসে আমরা হাঁফ ছেঁড়ে বেঁচে খুশি হয়ে উঠি। লেখকের রচনাগুণের সামর্থ এখানেই।

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য করার পূর্বে মন্তব্যর নীতিমালা সম্পাদকের স্বীকারোক্তি পাঠ আবশ্যক। ইচ্ছে হলে ই-মেইল করুন।