অন্তরালের আমি- জুয়েল আইচ

অন্তরালের আমি- জুয়েল আইচ

অন্তরালের আমি
জুয়েল আইচ


বিখ্যাত, সুখ্যাত, দর্শক নন্দিত, বাংলাদেশের জাদুশিল্পের প্রধান পুরুষ জুয়েল আইচ কেমন মানুষ, কিভাবে বড় হয়েছেন, শৈশব কৈশোর কোথায় কিভাবে কাটিয়েছেন ইত্যাদি জানার আগ্রহী মানুষের সংখ্যা কম নয়। সম্ভবত তাদের কথা ভেবেই জুয়েল আইচ তার আত্মজীবনী ধরণের একটি বই লিখেছেন। নাম অন্তরালের আমি, প্রকাশ করেছে সময় প্রকাশনী। প্রকাশ হয়েছে অনেক দিন আগে। ১০ বৎসরেরও বেশি সময় আগে। ১৯৯৭ সালের বইমেলাতে।

জুয়েল আইচ শুধুমাত্র তাঁর জাদু উপস্থানে শৈল্পিক ভঙ্গিকে আত্মস্থ করেছেন, বইটা পড়ার পর একথা বলা কোনমতেই সম্ভব নয়। তিনি লেখালেখিতেও সিদ্ধহস্ত। হয়তো কম লেখেন। কিন্তু লিখতে তিনি যে পারেন তার প্রমাণ রয়েছে এই বইতে। সহজ ভাষা, সরল গদ্য, সহজবোধ্য ভাষাভঙ্গি অর্থাৎ সাধারণ মানুষের বোঝার উপযোগী ভাষা জুয়েল আইচ সহজাত বোধ দ্বারাই আয়ত্ব করেছেন।

বইটির লেখকের কথা অংশে তিনি লিখেছেন
" অন্তরালের আমি'র অন্তরালে শুধু একা আমিই নই, রয়েছেন আরো অনেকে। নাছোড়বান্দা কিছু সাংবাদিক বন্ধু আমায় নিংড়ে এসব অন্তরালের কথা বিভিন্ন সময় বের করে নিজ নিজ পত্রিকায় প্রকাশ করেছেন। কেউ আমার ব্যস্ত সময়ে শো'র পরে মঞ্চে এসে, কেউবা বাড়িতে এসে ক্যাসেট রেকর্ডারে অথবা নোট প্যাডে টুকে নিয়ে পরে অনুলিখন করেছেন।

কেউ আবার জোর করে আমাকে দিয়েই লিখিয়েছেন। তাই এ বই এর প্রদান কৃতিত্ব তাঁদেরই।...

এই লেখাগুলো নিয়েই যে একটা বই হতে পারে এমন ধারণা এবং তীব্র আগ্রহ আমার স্ত্রী বিপাশার। লেখাগুলো সংগ্রহে রেখে সময় মত খুঁজে বের করে সে আমায় জাদু দেখিয়ে দিল।

যাঁদের কথা ঘুরেফিরে এই বই-এ এসেছে, যাদের সঙ্গে নিয়ে দেশে বিদেশে মঞ্চে টেলিভিশনে জাদু দেখাতে ঘুরে বেড়াই, যাঁরা বিদেশ বিভূঁই - এ ব্যক্তিগত আরামকে হারাম করে বিদেশীদের কাছে স্বদেশের সম্মান বাড়ানোর জন্য আমাদের অনুষ্ঠানের আয়োজন করে আত্মার আত্মীয় হয়ে যান, বিদেশী হয়েও যাঁরা আমাদের অনুষ্ঠান করতে আমন্ত্রণ জানান, মাথায় তুলে ধরেন, বুকের ভেতরে স্থান দেন, এয়ারপোর্টে বিদায় দেয়ার সময় চোখের জল ছেড়ে দেন, এদের সবার কাছে আমার সীমাহীন কৃতজ্ঞতা।"

অন্তরালের আমি'র সূচীপত্রে রয়েছে:-
  • আমার জাদুর প্রথম দিন
  • বিস্ময় চারিদিকে
  • জাদুশিল্পী
  • জাদুর আজ কাল পরশু
  • মেয়েদের স্নায়ুর জোর
  • প্রথম প্রেমের অনুভূতি
  • প্রথম প্রেম
  • আমেরিকায় প্রথমবার
  • নিউ ইয়র্কের পথে একদিন
  • যে আনন্দ ভোলার নয়
  • দেশ হতে দেশান্তরে
  • জাদুশিল্পীর বিপদ
  • কিছু কথা কিছু স্মৃতি
  • আমার কলম
  • ভূতের সঙ্গে কিছুক্ষণ
  • ভেসে আসছে বাঁশির অপার্থিব সুর
  • পান্নালালের একটি বাঁশি যদি ছিটকে পড়তো
  • বাঁশি বাজাব কিন্তু কেউ শুনবে না
  • পুরস্কার
  • মেয়েদের সামনে প্রথম বাঁশি
  • কেমন বিপদ
  • স্বপ্ন যখন সত্য হয়
  • আমরা মাছি, না মৌমাছি হবো?
  • জীবন জয়ের জাদু


ISBN: 984-458-127-3

নান্দনিক প্রচ্ছদটি এঁকেছেন ধ্রুব এষ

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য করার পূর্বে মন্তব্যর নীতিমালা সম্পাদকের স্বীকারোক্তি পাঠ আবশ্যক। ইচ্ছে করলে ই-মেইল করতে পারেন।