ক্রমাগত অন্ধকারে ডেস্কটপের ছায়া- শুভ্র সরখেল

ক্রমাগত অন্ধকারে ডেস্কটপের ছায়া- শুভ্র সরখেল
আলো অন্ধকারে যাই...
আহমেদ মওদুদ

‘পৃথিবীর সমস্ত চাঞ্চল্য আমার বন্ধু ছিল একদিন’ অথবা ‘এখনো শোনার বাকী আছে পলাশীর সর্বশেষ সত্য’ এরকম অনেক দার্শনিক সত্যে ঘেরা কবি শুভ্র সরখেলের কবিতা। ইনিয়ে-বিনিয়ে কথার ফাঁদ পাতার পক্ষপাতি নন শুভ্র। শিল্পের ধোঁয়া তুলে সত্যকে আড়াল করার পক্ষপাতিও নন বরং কখনো ইতিহাস, কখনো দর্শন আবার কখনোবা ভবিষ্যতের ভগবানকে নির্দিধায় দাঁড় করান বর্তমানের আয়নায়। সেই আয়নার দিকে তাকিয়ে চমকে উঠি আমরা। আবার কোন কোন সময় চমকে ওঠার সুযোগ না দিয়ে বারমুডা ট্রায়াঙ্গালের মতো আয়না তার গর্ভে টেনে নেয় আমাদের। আমরা হারিয়ে যাই নয়তো নিজেদের খুঁজে পাই নির্বাসিত কোন দ্বীপে অথবা আমাদের নির্বাসনের মনোভাবই তৈরি করে নেয় সেই দ্বীপ যেখানে একই সময়ে হাজির অতীত, বর্তমান আর ভবিষ্যত। আমরা বিচরণ করতে পারি যে যার পছন্দের সময়ে অথবা অসময়ে। নিশ্চিন্তে চলাফেরা করি নৈঃশব্দ্যে, শব্দে। বেদমতে স্বয়ং ব্রহ্মাই শব্দরূপে হাজির হন এই ধরায় অর্থাৎ ব্রহ্মাই শব্দ অথবা শব্দই ব্রহ্মা, শব্দই শক্তি। আর শব্দই যখন কবিতার অনুপ্রাণ তখন কবিতাও কবির শক্তিমত্তার জানান দেন নানা ঢঙে, নানান কৌশলে। কবি শুভ্র সরখেলও কবিতা রচনায় যথেষ্ট কৌশলী সে কথা বলার অপেক্ষা রাখে না। তবে কিছু কবিতায় কবি অনেকাংশেই আবেগাক্রান্ত (অসুস্থ, অপরিবর্তনীয়, স্নিগ্ধার অপমৃত্যু) যেখানে কবিতা তার নিজের ভাষা থেকে কিছুটা বিচ্যুত বলে মনে হতে পারে। তবুও কথা থেকে যায়, কবিতা অনেক ভাবেই হতে পারে। ধন্যবাদ কবি রাশেদুন্নবী সবুজকে বাঙ্ময় থেকে শুভ্র সরখেলের কাব্যগ্রন্থ ‘ক্রমাগত অন্ধকারে ডেস্কটপের ছায়া’ প্রকাশ করে পাঠের সুযোগ করে দেয়ার জন্য।

প্রকাশক: বাঙ্ময়, কুড়িগ্রাম। প্রচ্ছদ: সংগৃহীত স্কেচ অবলম্বনে: সাম্য রাইয়ান।
প্রথম প্রকাশ: ফেব্রুয়ারি ২০১২; মূল্য: ২৫ টাকা।

কোন মন্তব্য নেই

মন্তব্য করার পূর্বে মন্তব্যর নীতিমালা সম্পাদকের স্বীকারোক্তি পাঠ আবশ্যক। ইচ্ছে করলে ই-মেইল করতে পারেন।